শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে

 

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে পাঠকদের উদ্দেশ্যে কিছু কথা বলা সেটা হল শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে প্রথমত আপনাদের অনেক ধরনের প্রতিদিন কাজ করে যেতে হবে সেই কাজগুলোর মধ্যে বেশির ভাগই হচ্ছে ব্যায়াম করতে হবে তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে। পোস্টটি শুরু করার আগে পোস্ট সূচিপত্র দেখে নিন।
শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে

সূচিপত্রঃ শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে

ভূমিকা

সবার প্রথমেই শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে এটা সম্পর্কে কিছু কথা না বললেই নয়। প্রতিদিন শরীর সুস্থ রাখতে হলে কিছু পরিমাণের শারীরিক পরিশ্রম করতে হবে অথবা ব্যায়াম করতে হবে। শরীর সুস্থ থাকলে শারীরিকভাবে অথবা মানসিকভাবে আপনি সুস্থ থাকবেন। এছাড়াও শারীরিক সুস্থতার জন্য কিছু ব্যায়াম সম্পর্কে বলা হবে। 

সেগুলো অনুসরণ করলে আপনার শরীর অবশ্যই সময়ের জন্য সুস্থ থাকবে এছাড়া প্রতিদিন সুস্থ থাকার কিছু ব্যায়ামের কথা এখানে উল্লেখ করা হবে সেগুলো নিচে আলোচনা করা হবে একের পর এক পোস্টটি ধৈর্য সহকারে পড়বেন তাহলে আপনার শারীরিক সব সমস্যার সমাধান এখানে পেয়ে যাবেন।

শরীর ফিট রাখার উপায়

শরীর ফিট রাখা বলতে শুরুতে যেটা বোঝা যায় প্রচুর পরিমাণে ব্যায়াম করতে হবে ব্যায়ামের মধ্যে হাঁটা জগিং সাইকেল চালানো সাঁতার কাটা ইত্যাদি এই ধরনের ব্যায়ামগুলো রেগুলারলি করতে হবে তাহলে আপনি শরীর ফিট রাখতে পারবেন এছাড়াও আরো বেশ কিছু উপায় রয়েছে সেগুলোর আলোচনা করা হচ্ছে স্টেপ বাই স্টেপ। 

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে এর মধ্যে শরীরের ফীল ধরে রাখতে ১৮ থেকে ৬৪ বছর বয়স সুস্থ ও স্বাভাবিকভাবে যদি চলতে হয় তাহলে মানুষকে ১৫০ মিনিট এবং ৭৫ মিনিট জোর গতিতে সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন হাঁটতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনি সকালে ২০ মিনিটে বিকালে ২০ মিনিট হাঁটতে পারেন। এছাড়া শরীর ফিট রাখতে ছোট পাত্রে খাওয়ার অভ্যাস করুন।খাওয়ার সময় সেটাকে ভালোভাবে চিবিয়ে খান। 
দিনে দুশ্চিন্তা কমানোর জন্য ১০ মিনিট ধরে ব্যায়াম করুন খাবার খাওয়ার ১৫ মিনিট আগে অথবা পরে পানি খাবেন। রান্নাঘরে সুস্বাস্থ্যকর খাবার রাখুন প্যাকেটজাত খাবারের বলে ডিম দুধ সবজি এইসব রাখতে পারেন। ছুড়ির ফিট রাখার আরেকটি অন্যতম উপায় হচ্ছে মস্তিষ্ক হিটপিণ্ড কিডনি হাড়ের যত্ন ঠিকমতো নেওয়া অথবা পেট বা অন্তর ঠিক রাখুন হেঁটে পায়ের যত্ন নিন অথবা মাঝে মাঝে ব্যায়াম করুন তাহলে আপনার শরীর ভালো থাকবে।

মুখের স্বাস্থ্য ভালো করার উপায়

মুখের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য নিয়মিত মুখ পরিষ্কার রাখতে পারেন। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের নেশা জাতীয় দ্রব্য মুখের রোগের কারণ হতে পারে। এছাড়া আপনি প্রতিনিয়ত দাঁত ব্রাশ করতে পারেন তাহলে মুখের গন্ধটা থাকবেনা অথবা আপনি মুখের গন্ধ অথবা মুখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে হলে প্রতিনিয়ত লবঙ্গ অথবা দারুচিনি মুখে রাখতে পারেন সে ক্ষেত্রে মুখে দুর্গন্ধ হবে না। মুখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে হলে অবশ্যই দিনে দুইবার ব্রাশ করতে হবে। 

শুধু ব্রাশ করলেই হবে না তার সঙ্গে পরিষ্কার রাখতে হবে জিভ। প্রতিনিয়ত ব্রাশ করার কারণে দাঁতে অথবা মুখে কোন ধরনের ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করতে পারে না সে ক্ষেত্রে আপনার মুখের স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। এছাড়াও যথেষ্ট পরিমাণে পানি পান করতে পারেন। এছাড়া ঘন ঘন স্নেকিং এড়িয়ে চলুন টুথব্রাশটা নষ্ট হয়ে গেলেই সাথে সাথে চেঞ্জ করুন এছাড়া নিয়মিত দাঁতের চেকআপ করাতে পারেন দাঁতের সুস্থতার জন্য।

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে 

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে তার মধ্যে শারীরিক বা মানসিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য আপনাকে দুই দিক থেকেই সুস্থ থাকতে হবে তাহলে একজন প্রকৃত সুস্থবান মানুষ হিসেবে পরিচিতি লাভ করবেন। শারীরিক বা মানসিক সুস্থতার জন্য প্রতিনিয়ত ব্যায়াম করতে হবে পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে যেকোনো ধরনের যান্ত্রিক ব্যবহার সীমিত করতে হবে। সংক্রিয় থাকুন। সংক্রীয় থাকা বলতে আপনাকে বিভিন্ন ধরনের জটিল টাইপের কাজের সমাধান করার চেষ্টা করতে হবে। 

সে ক্ষেত্রে আপনার শেখার দক্ষতা বার কাজ করার আগ্রহটাও বৃদ্ধি পাবে। সব সময় পজিটিভ চিন্তাভাবনা করুন। ভালোভাবে সম্পর্ক গড়ে তুলতে হলে পরিবার অথবা বন্ধু-বান্ধবের সাথে ভালো ব্যবহার করুন। স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করার আগ্রহ তৈরি করুন। আপনি সখে যে কাজগুলো করতে পছন্দ করেন সেগুলো করার চেষ্টা করুন। পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমানোর চেষ্টা করুন। 
মন খুলে হাসতে চেষ্টা করুন এতে আপনার শরীর সুস্থতার সব চেয়ে বড় অংশ। সবার সাথে মিশে পরিচিত হয়ে কথা বলার চেষ্টা করুন তাহলে মন মানসিকতা ভালো থাকবে। কোন কিছু করতে না পারলে অন্যের সাহায্য নিন এতে কোন ধরনের লজ্জাবোধ করবেন না এতে আপনার জন্যই উপকার। মাঝে মাঝে মেডিটেশন করার চেষ্টা করুন এতে মন মানসিকতা ভালো থাকে।

শরীর সুস্থ রাখার ব্যায়াম

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে তার মধ্যে শরীর সুস্থ রাখতে হলে নিয়মিত ব্যায়াম আবশ্যক এর মধ্যে কিছু ব্যায়াম রয়েছে যেগুলো শরীর সুস্থ রাখার জন্য অন্যতম এটা একটা হচ্ছে দড়ি লাভ যেমন আমরা ছোটবেলায় দড়ি লাভ দেওয়া একটা খেলা খেলতাম সেই ধরনের দড়ি লাভ দিতে হবে প্রতিদিন তাহলে শরীর সুস্থ থাকবে। এছাড়া বুকডাউন এর মাধ্যমে শরীর সুস্থ রাখা সম্ভব।

এছাড়া আপনারা আশেপাশে যদি প্রতিনিয়ত সাঁতার কাটা সুযোগ হয় যেমন আশেপাশে পুকুর নদীগুলে সাঁতার কাটার চেষ্টা করবেন তাহলে আপনার শরীর মন সুস্থ থাকবে। প্রতিদিন একটু হলেও দৌড়ানোর চেষ্টা করবেন। এছাড়া শরীর সুস্থ রাখার জন্য প্রতিনিয়ত মেডিটেশন করতে পারেন। নিয়মিত একটু হলেও হাঁটার চেষ্টা করবেন।

শরীর সুস্থ রাখার রুটিন

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে তার মধ্যে শরীর সুস্থ রাখার রুটিন সম্পর্কে সবাই জানি। এই রুটিন শব্দটি আমাদের ছোটবেলার পড়াশোনা থেকে আমাদের মাঝে চলে এসেছে। এর মধ্যে শরীর সুস্থ রাখারও একটা রুটিন রয়েছে যেমন সময় মত ব্যায়াম করা সঠিক খাবার খাওয়া পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি খাওয়া মেডিটেশন করা নিয়মিত ডাক্তারের কাছে হেলথ সম্পর্কে পরামর্শ নেওয়া। 

শরীরের সঠিকভাবে ওজন বজায় রাখতে হবে রাতে ভালোভাবে ঘুমাতে হবে এছাড়া ঘরের খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন বাইরের খাবার এড়িয়ে চলুন স্বাস্থ্যকর খাবার গুলো খেলে আপনার শরীর অবশ্যই সুস্থ থাকবে মাঝে মাঝেই বাইরে যান অথবা সবার সাথে কথাবার্তা বলুন স্বাস্থ্য সচেতনমূলক পরামর্শ গ্রহণ করুন।

সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিন কি খেতে হবে

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে তার মধ্যে শরীর সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিন আপনাকে খুব দ্রুত খাবার খাওয়া চলবে না খাবারটা খুব ধীরে ধীরে খেতে হবে এবং চিবিয়ে খুব সময় নিয়ে খেতে হবে তাহলে আপনার শরীর সুস্থ থাকবে। অলস সময় গুলোতে শুয়ে বসে থাকলে চলবে না এতে শরীরে অনেক ধরনের রোগ জমা বাঁধে সে ক্ষেত্রে যে কোন ধরনের কাজগুলো করতে পারেন আপনার অবসর সময়ে। 

এছাড়া নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে পারেন। মানসিক চাপ কমান। প্রাপ্ত ও ভালো ঘুম খুবই জরুরী সুস্থ শরীরের জন্য। সঠিক সময়ের সুস্থ সুসং খাবার খান যেমন ফল শাকসবজি এবং মাছ শোষণ জাতীয় খাবার। এছাড়া ঘন ঘন হাত ধুয়ে ফেলুন হাতে অনেক ধরনের ব্যাকটেরিয়া থাকে মুখের মধ্যে দিয়ে পেটে যাই এতে শরীর দুর্বল করে ফেলে। 
ছাড়া সবুজ শাকসবজি প্রচুর পরিমাণে খেতে হবে এতে স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। এছাড়া মাঝে মাঝেই ডাবের পানি খাওয়ার চেষ্টা করুন অথবা ফল ফল খাওয়ার চেষ্টা করুন। এছাড়া লবঙ্গ এলাচ দারুচিনি এইগুলা খেতে পারেন স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য। স্বাস্থ্য ভালো রাখার খাবারের মধ্যে খেজুর অন্যতম ভূমিকা পালন করে।

প্রতিদিন সুস্থ থাকার উপায়

প্রতিনিয়ত সুস্থ থাকার জন্য আপনি সঠিক সময় স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে পারেন ঘন ঘন হাত ধুতে হবে হাতে যেন কোন ধরনের রোগ জীবাণু না থাকে। মানসিক চাপ কমাতে হবে প্রতিদিন সুস্থ থাকার জন্য। এছাড়া প্রতিদিনের ঘুম প্রতিদিন পূরণ করুন মিনিমাম 5 থেকে 7 ঘন্টা আপনার ঘুমানোর দরকার পাঁচ থেকে সাত ঘন্টা ঘুম হলে আপনার সুস্থতা অনিবার্য। 

শরীর দুর্বল লাগলে সাপ্লিমেন্টাল ভিটামিন গ্রহণ করতে পারেন। সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠতে পারেন এতে শরীর সুস্থ থাকবে এবং সতেজ থাকবে। শরীর সুস্থতার জন্য প্রতিনিয়ত ব্যায়াম করতে পারেন। আর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সকালের নাস্তা টা পরিবেশন করুন। খুব বেশি পরিমাণে সবুজ শাকসবজি খাওয়ার অভ্যাস তৈরি করুন। প্রতিদিন ৮ গ্লাস করে পানি পান করার চেষ্টা করুন। কাজের মধ্যে মাঝে মাঝে টি ব্রেক নিতে হবে।

লেখকের শেষ কথা

উল্লেখিত আলোচনার মধ্যে আমরা জানতে পেরেছি শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে তার মধ্যে অনেকগুলো উপায় তার মধ্যে অন্যতম উপায় হচ্ছে আমাদের প্রতিনিয়ত সবুজ শাকসবজি খেতে হবে ব্যায়াম করতে হবে আর প্রতিদিন ঠিকমতো ঘুমোতে হবে এছাড়া আরও স্বাস্থ্য সচেতন মূলক পোস্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন অথবা এ ধরনের কোন প্রশ্ন থাকলে আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন আমরা যথাসময়ে সমাধান দেয়ার চেষ্টা করব। এছাড়া নতুন পোস্ট পেতে আমাদের ফলো দিয়ে রাখুন। 
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url